পাতা

জেনারেল ম্যানেজার এর বাণী

সম্মানিত সুধীমন্ডলী,

গ্রামীণ আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে ১৯৭২ সালে প্রণীত আমাদের পবিত্র সংবিধানের ১৬ নং অনুচ্ছেদে প্রতিটি গ্রামে বিদ্যুৎ সুবিধা পৌঁছে দিয়ে শহর ও গ্রামের মধ্যকার বৈষম্য দূর করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় ১৯৯৬ সালের ২৭ এপ্রিল মাগুরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি আনুষ্ঠানিকভাবে বিদ্যুৎ বিতরণ শুরু করে । শুরু থেকে এ পর্যন্ত সমিতির আওতাভুক্ত ০৪ (চার)টি উপজেলা ৪২৯৪ কিঃমিঃ বিদ্যুৎ বিতরণ লাইন ও ০৪টি ৩৩/১১কেভি বৈদ্যুতিক উপকেন্দ্র নির্মানের মাধ্যমে ২০০৩৮৫ টি সংযোগ প্রদান করা হয়েছে। সরকারের পরিকল্পনা মোতাবেক প্রতিটি ঘরে বিদ্যুৎ সুবিধা পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে খুলনা বিভাগীয় প্রকল্প-২, ১.৫ মিলিয়ন গ্রাহক সংযোগ প্রকল্প, ১০০% ডিএনই প্রকল্প ও ইউআরআইডিএস প্রকল্পে র আওতায় চলতি অর্থ বছরে অত্র পবিসে ১৪০ কিঃমিঃ নতুন লাইন নির্মাণ কাজ এগিয়ে চলছে। ইতোমধ্যে শালিখা, শ্রীপুর ও মাগুরা সদর উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন কাজ সম্পন্ন হয়েছে। আগামী ডিসেম্বর/২০১৮ মাসের মধ্যে অবশিষ্ট ০১ (এক) টি  উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়ন কাজ সম্পন্ন করার দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে এ কাজে আপনাদের সকলের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করছি।

সম্মানিত গ্রাহকবৃন্দ,

সুষ্ঠু ও নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ, গ্রাহক অভিযোগ দ্রুত নিরসন, সময়মত মিটার রিডিং গ্রহন করে বিদ্যুৎ বিল গ্রাহক প্রান্তে পৌঁছানো সহ উন্নত গ্রাহক সেবা প্রদানের লক্ষ্যে সদর দপ্তর ছাড়াও পবিস এর ভৌগলিক এলাকায় ০১ টি জোনাল অফিস, ০১ টি সাব জোনাল অফিস, ০১টি এরিয়া অফিস ও ০৭টি অভিযোগ কেন্দ্র স্থাপন করে ২৭৪ জন কর্মকর্তা/কর্মচারী নিরলসভাবে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। বর্তমানে ৩৮ টি ব্যাংক শাখা, ০৩টি এজেন্ট ব্যাংকিং, অফিস ক্যাশ শাখা, ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার , অন-লাইনে টেলিটক এর মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল গ্রহণ করা হচ্ছে। সকল গ্রাহককে বিদ্যুৎ বিলের হার্ডকপি প্রদান ছাড়াও মোবাইল এসএমএস এর মাধ্যমে বিলের পরিমাণ ও পরিশোধের শেষ তারিখ এসএমএস এর মাধ্যমে নিশ্চিত করা হচ্ছে। তাই নিয়মিত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করে অত্র পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির আর্থিক ভিত মজবুত করা এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কাজে সহযোগিতার অনুরোধ করছি। বিদ্যুৎ চুরি প্রতিরোধসহ সাশ্রয়ী বিদ্যুৎ ব্যবহারে সকলকে উদ্বুদ্ধ করার আহ্বান জানাচ্ছি। আপনাদের সক্রিয় সহযোগিতা ও সমিতির কর্মকর্তা/কর্মচারীদের নিরলস প্রচেষ্টায় সমিতির সিষ্টেম লস হ্রাসসহ এপিএ লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হবে আশা করছি।

সম্মানিত সুধী,

বিদ্যুতায়িত লাইনের আওতাধীন আবেদনকারীর আবেদন দ্রুত নিষ্পত্তি করার ঐকান্তিক ইচ্ছা নিয়ে আমরা কাজ করছি। সরকারী বিভিন্ন প্রকল্প ছাড়াও সমিতির নিজস্ব অর্থায়নে মিটার, সার্ভিস ড্রপ ও ট্রান্সফরমারসহ প্রয়োজনীয় মালামাল সংগ্রহের মাধ্যমে প্রতিমাসে গড়ে প্রায় ২০০০ (দুই হাজার) নতুন গ্রাহক সংযোগ প্রদান করা হচ্ছে। গ্রাহক সংযোগ সহজীকরণের উদ্দেশ্যে মাগুরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে অন-লাইনে বিদ্যুৎ সংযোগের আবেদন গ্রহণ এবং সংযোগ কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। এতে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রত্যাশী গ্রাহকের সময় এবং অর্থ খরচ করে অফিসে আসার প্রয়োজন হয় না। অনলাইনে আবেদন, ওয়্যারিং রিপোর্ট প্রদান এবং ই-ক্যাশ এর মাধ্যমে কাষ্টমার ডিপোজিট (সিডি) এর টাকা জমা দিয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ গ্রহণ করে দুর্নীতিরোধ ও স্বল্প সময়ে সংযোগ প্রদানে সহযোগিতা করার আহ্বান জানাচ্ছি।

পরিশেষে মাগুরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি পরিচালনায় বিগত সময়ের মত স্থানীয় প্রশাসন, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সর্বোপরি গ্রাহক সদস্যের সহযোগিতা, সমিতি বোর্ড পরিচালক ও সকল স্তরের কর্মকর্তা/কর্মচারীদের নিরলস প্রচেষ্টায় গ্রাহক সেবার মান বৃদ্ধির প্রত্যয় নিয়ে আল্লাহ্ হাফেজ।

 

(রবীন্দ্রনাথ দাস)

জেনারেল ম্যানেজার

মাগুরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি।

 

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter